আসামিদের রায় কার্যকর দেখতে চান রুপার মা

0
11

তারা নিউজ ডেস্ক:

টাঙ্গাইলের মধুপুরে চলন্ত বাসে গণধর্ষণ ও হত্যার শিকার বহুল আলোচিত জাকিয়া সুলতানা রুপা হত্যার ইতোমধ্যে দুই বছর পেরিয়ে গেছে। জীবদ্দশায় আসামিদের রায় কার্যকর দেখতে চান রুপার মা ও তার পরিবার।

রুপার মা হাসনাহেনা বেগম (৫৮) বলেন, মা আর অসহায় ভাই-বোনদের জন্য সবকিছু করার প্রবল ইচ্ছা প্রকাশ করত রুপা। স্বপ্ন দেখতো উচ্চ শিক্ষায় শিক্ষিত হয়ে একদিন বড় কর্মকর্তা হবে। এখন একটাই দাবি দ্রুত আসামিদের রায় কার্যকর করা হোক।

রুপার বড় ভাই হাফিজুর রহমান বলেন, আসামিরা ২০১৮ সালের ১৮ ফেব্রেুয়ারি খালাস চেয়ে হাইকোর্টে আপিল করেন। এরপর গত ১৯ মাসেও চাঞ্চল্যকর এ মামলায় শুনানি শুরু হয়নি। নিম্ন আদালতে দ্রুততম সময়ে মামলার রায় ঘোষণায় আমরা সন্তুষ্ট হয়ে ছিলাম। তবে উচ্চ আদালতে আসামিপক্ষের আপিলের পর মামলাটি গত প্রায় দুবছর ঝুলে থাকায় হতাশ হয়ে পড়েছি।

প্রসঙ্গত: ২৫ আগস্ট রাতে মধুপুর বনাঞ্চলের রাস্তায় বাসের মধ্যে গণধর্ষণ করে হত্যা করা হয় রুপাকে। ৩১ আগস্ট রাতে নিজ গ্রাম আসানবাড়ি কবরস্থানে দাফন করা হয়। রুপা সিরাজগঞ্জের তাড়াশ উপজেলার আসানবাড়ি গ্রামের মৃত জেলহাজ প্রামানিকের মেয়ে।

LEAVE A REPLY