ইংলিশদের বোলিং তোপে কাঁপছে উইন্ডিজ

0
6

তারা নিউজ ডেস্ক:

ইংল্যান্ড বোলিংয়ে অ্যান্ডারসন-ব্রডের সেই পুরোনো জুটি। সঙ্গে তরুণ আর্চার ও ক্রিস ওকসের সুইং।

সবমিলিয়ে এক তাণ্ডবের মাঝেই পড়েছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। তাইতো সিরিজের তৃতীয় টেস্টের দ্বিতীয় দিন নিজেদের প্রথম ইনিংসে ব্যাটিংয়ে নেমে রীতিমতো ধুঁকছে দলটি। দলীয় ১৩৭ রানে ৬ উইকেট হারিয়ে মাঠ ছেড়েছে তারা। এখনও তারা ইংলিশদের প্রথম ইনিংস থেকে ২৩২ রানে পিছিয়ে রয়েছে। যেখানে ইংল্যান্ড প্রথম ইনিংসে ৩৬৯ রানে অলআউট হয়েছিল।

ম্যানচেস্টারে ম্যাচের দ্বিতীয় দিন (২৫ জুলাই) প্রথম ইনিংসে ব্যাটিংয়ে নেমে ইংলিশ বোলারদের তোপের মুখে পড়ে উইন্ডিজ ব্যাটসম্যানরা। সর্বোচ্চ ৩২ রান করে জোফরা আর্চারের শিকার হন ওপেনার জন ক্যাম্পবেল। অন্যপ্রান্তে অভিজ্ঞ জেমস অ্যান্ডারসন ও স্টুয়ার্ট ব্রডের ঝড়ে একে একে ক্রেইগ ব্র্যাথওয়েট, শাই হোপ, শামারাহ ব্রুকস ও রোস্টন চেজের মতো পরীক্ষিত ব্যাটসম্যানরা সাজঘরে ফেরেন।

জারমেইন ব্ল্যাকউড কিছুটা চেষ্টা করলেও ব্যক্তিগত ২৬ রানে ওকসের বলে বোল্ড হন। অধিনায়ক জেসন হোল্ডার ২৪ ও শেন ডোওরিচ ১০ রানে অপরাজিত আছেন।

অ্যান্ডারসন ও ব্রড সমান দুটি করে উইকেট নিয়েছেন। আর একটি করে উইকেট দখল করেন আর্চার ও ওকস।

এর আগে দারুণ এক মাইলফলক গড়েন কেমার রোচ। এই শতাব্দীতে প্রথম কোনো ক্যারিবীয়ন বোলার হিসেবে টেস্টে ২০০ উইকেটের কীর্তি গড়েন তিনি।

প্রথম ইনিংসে ব্যাটিংয়ে নামা ইংলিশদের ৪ উইকেট নিয়ে মাইলফলকটি গড়েন ডানহাতি ফাস্ট বোলার রোচ। তার আগে ওয়েস্ট ইন্ডিজের সর্বশেষ কোন বোলার হিসেবে টেস্টে ২০০ উইকেট পেয়েছিলেন ১৯৯৪ সালে কার্টলি অ্যামব্রোস।

ইংল্যান্ড প্রথম ইনিংসে ৩৬৯ রানে অলআউট হয়। প্রথম দিনে ৯১ রানে অপরাজিত থাকা অলি পোপ শেনন গ্যাব্রিয়েলের বলে বোল্ড হন একই রানে। ৬৭ করেন জস বাটলার। তবে শেষ দিকে নেমে স্টুয়ার্ট ব্রড ৬২ রান করে দলের সংগ্রহ বাড়ান।

ক্যারিবীয় বোলারদের মধ্যে রোচ ৪টি, এছাড়া গ্যাব্রিয়েল ও রোস্টন চেজ ২টি করে উইকেট পান।

LEAVE A REPLY