ইংল্যান্ড-অস্ট্রেলিয়া মুখোমুখি

0
5
ক্রিকেটের সবচেয়ে পুরনো দুই দল। ইংল্যান্ড ও অস্ট্রেলিয়ার লড়াই মানেই বাড়তি উন্মাদনা। প্রাচীন দুই প্রতিপক্ষ আজ বিশ্বকাপের দ্বিতীয় সেমিফাইনালে মুখোমুখি হচ্ছে এজব্যাস্টনে। স্বাগতিক হিসেবে ইংল্যান্ডের দিকেই পাল্লাটা ভারি বলে মনে করছেন অনেকে। তবে বিশ্বকাপের ওয়ার্ম-আপ ম্যাচ এবং রাউন্ড রবিন পর্বে ইংল্যান্ডকে হারিয়েছে অস্ট্রেলিয়া। আগের দুটি জয় অস্ট্রেলিয়াকে নিঃসন্দেহে বাড়তি বিশ্বাস জোগাবে। কিন্তু স্বাগতিক হিসেবে ইংল্যান্ড নিজেদেরকে যেভাবে ফর্মে ফিরিয়েছে তা ভয় ধরাতে পারে অস্ট্রেলিয়ার সমর্থকদের মনেও। আজকের লড়াই নিয়ে ক্রিকেটবোদ্ধারাও তাই ফিফটি-ফিফটির বাইরে কিছু বলতে নারাজ।

বৃষ্টি বাধায় প্রথম সেমিফাইনাল রিজার্ভ ডেতে গড়িয়েছে। দ্বিতীয় সেমিফাইনালে কি হতে পারে! ওয়েদার রিপোর্ট বলছে, আজ বৃষ্টি হতে পারে বার্মিংহামে। সেক্ষেত্রে এজব্যাস্টনে ইংল্যান্ড-অস্ট্রেলিয়া ম্যাচও বৃষ্টিতে সিক্ত হতে পারে। অবশ্য এক্ষেত্রেও রিজার্ভ ডে’র ব্যবস্থা আছে।

অতীত লড়াইয়ে এগিয়ে আছে অস্ট্রেলিয়া। ১৪৮ বারের মুখোমুখিতে অস্ট্রেলিয়া জিতেছে ৮২ বার। ইংল্যান্ড জিতেছে ৬১ বার।
বিশ্বকাপে অস্ট্রেলিয়া-ইংল্যান্ড লড়াই হয়েছে ৮ বার। এর মধ্যে ৬ বারই জিতেছে অসিরা। ২ বার জিতেছে ইংল্যান্ড। ১৯৭৫ সালে বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে ইংল্যান্ডকে ৪ উইকেটে হারিয়েছিল অস্ট্রেলিয়া। ১৯৭৯ সালে গ্রুপ পর্বে ইংল্যান্ড ৬ উইকেটে হারায় অস্ট্রেলিয়াকে। ১৯৮৭ সালের ফাইনালে ইংল্যান্ডকে হারিয়েই চ্যাম্পিয়ন হয় অস্ট্রেলিয়া। ৭ রানে জিতে অসিরা। ১৯৯২ সালে রাউন্ড রবিন পর্বে ইংল্যান্ড ৮ উইকেটে হারায় অস্ট্রেলিয়াকে। ২০০৩ সালে গ্রুপ পর্বে ইংল্যান্ডকে ২ উইকেটে হারায় অস্ট্রেলিয়া। ২০০৭ সালে সুপার এইটে ৭ উইকেটে ইংল্যান্ডকে হারায় অস্ট্রেলিয়া। ২০১৫ সালে গ্রুপ পর্বে অসিরা ১১১ রানে হারায় ইংল্যান্ডকে। চলতি আসরে রাউন্ড রবিন পর্বে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ৬৪ রানে জিতে অস্ট্রেলিয়া। এবার কী হয় দেখা যাক!

LEAVE A REPLY