নোয়াখালীতে ভুল অপারেশনে প্রসূতি ও নবজাতকের মৃত্যু

0
24

তারা নিউজ ডেস্ক:

নোয়াখালীর সেনবাগ উপজেলায় ভুল সিজার অপারেশনে বিবি কুলছুম (১৯) নামে এক প্রসূতি ও নবজাতকের মৃত্যুর অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে বৃহস্পতিবার সকালে হাসপাতালের মালিক ও ওয়ার্ডবয়কে আটক করেছে পুলিশ।এর আগে বুধবার দিবাগত রাত দেড়টায় সেনবাগ বাজারের দি নিউ সেন্ট্রাল হাসপাতালে সিজারের সময় প্রসূতি ও নবজাতকের মৃত্যু হয়।

নিহতরা হচ্ছেন, উপজেলার ডমুরুয়া ইউনিয়নের শ্রীপুর বাবুপুর গ্রামের আব্দুল আমিন রিপনের স্ত্রী ও তার সদ্য জন্ম নেওয়া নবজাতক।
আটককৃতরা হচ্ছেন, হাসপাতালের মালিক হারুন অর রশিদ ও ওয়ার্ডবয় আমিরুল ইসলাম।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, গত দেড় বছর পূর্বে আব্দুল আমিন রিপনের সাথে বিয়ে হয় বিবি কুলছুমের। বুধবার বিকেলে প্রসব ব্যাথা উঠলে পরিবারের লোকজন তাকে সেনবাগ বাজারের দি নিউ সেন্ট্রাল হাসপাতালে ভর্তি করে। গর্ভবতীকে রাত ১০টার দিকে ওই হাসপাতালে সিজার অপারেশন করা হয়।

নিহতের স্বজনদের অভিযোগ, কোন অভিজ্ঞ চিকিৎসক না থাকায় ওয়ার্ডবয় ও নার্সদের নিয়ে মালিকপক্ষের লোকজনই কুলছুমের অপারেশন করেন। পরে কুলছুমের অবস্থার অবনতি হলে তারা তাকে চট্টগ্রাম মেডিকেলের উদ্দেশ্যে নেওয়ার পথে ফেনীতে প্রসূতি ও নবজাতকের মৃত্যু হয়।

তারা আরো জানান, কয়েকদিন আগে বৈধ কাগজপত্র ও অব্যবস্থাপনার দায়ে র‌্যাবের ভ্রাম্যমান আদালত এই হাসপাতালকে পঞ্চাশ হাজার টাকা জরিমানা করেছিলো।

সেনবাগ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মিজানুর রহমান জানান, নিহতের পরিবারের অভিযোগের ভিত্তিতে হাসপাতালে অভিযান চালিয়ে হাসপাতালের মালিক হারুন অর রশিদ ও ওয়ার্ডবয় আমিরুল ইসলাম কে আটক করা হয়েছে। লাশ ময়না তদন্তের জন্য নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। ঘটনায় একটি হত্যা মামলার প্রস্তুতি চলছে। তিনি আরো জানান, ডাক্তার ও নার্স পালিয়ে যাওয়ায় তাদের গ্রেফতার করা সম্ভব হয়নি। তাদের গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

LEAVE A REPLY