বসত-বাড়ী দখলে ঢাকা সবুজবাগ থানা পুলিশ নির্বিকার

0
33

তারা নিজউ ডেক্সঃ আমি নিম্নস্বাক্ষরকারী মোছাঃ সালেহা আক্তার, স্বামী- মোঃ আশরাফুজ্জামান খান লিটন, ঠিকানাঃ বাড়ী নং- ১৮১, শাপলা কানন, থানা- সবুজবাগ, জেলা- ঢাকা এই মর্মে অভিযোগ করিতেছি যে, সূত্রে বর্ণিত ডাইরী মূলে আমার তফসীল ভুক্ত জমি নিন্মে উল্লেখিত বিবাদীগণসহ জন্টু দাসের নেত্রীত্বে ৩১-০৫-২০১৯ইং ও অদ্য ০১-০৬-২০১৯ইং জবর দখল করিতেছে। এই বিষয়ে অদ্য তারিখ পুলিশ কমিশনার ডিএমপি ঢাকা ও উপ-পুলিশ কমিশনার মতিঝিল জোন বরাবরে লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। সবুজবাগ থানায় সাধারণ ডাইরী করি। যাহা এসএই/নাজমূল সবুজবাগ থানার নিকট তদন্তাধীন আছে। উক্ত এস.আই অভিযোগ সংক্রান্তে আইনগত কোন পদক্ষেপ না নেওয়ায় জন্টু দাসের নেত্রীত্বে বিবাদীগণ আমার ভোগদখলীয় সম্পত্তিত্বে জবর-দখল করিয়া নির্মাণ কাজ করিতেছে।
জমি-জমা সংক্রান্তে গত ১৪-০৫-২০১৯ইং তারিখ বিজ্ঞ আদালতে ফৌজদারী কার্যবিধি ১৪৫ ধারা মতে একটি পিটিশন মামলা নং- ৬২/২০১৯ দায়ের করি। বিজ্ঞ আদালদ, অফিসার ইনচার্জ সবুজ থানাকে অভিযোগ সংক্রান্তে তদন্ত সাপেক্ষে প্রতিবেদন দাখিলসহ আইন শৃংঙ্খলার রক্ষার্থে প্রযোজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশ দেন। পিটিশন মামলাটি বর্তমানে এস.আই নাজমুল সবুজবাগ থানা ডিএমপি, ঢাকা এর নিকট তদন্তাধীন আছে। কিন্তু আবেদনে উল্লেখিত বিবাদীগণ গত ৩১-০৫-২০১৯ইং তারিখ এবং অদ্য ০১-০৬-২০১৯ইং আমার উক্ত জমিতে তারা নির্মাণ কাজ করিয়া দখল করার অপচেষ্টা করিতেছে। এ বিষয় আমি অফিসার ইনচার্জ ও এস.আই নাজমুল সবুজবাগ থানাকে বিষয়টি জানানো সত্বেও কোন পদক্ষেপ গ্রহণ করেন নাই। এমনকি বিবাদীগণের দখলের অপচেষ্টার রোধে কোন ব্যবস্থা গ্রহণ করেন নাই। এমতাবস্থায় যে কোন সময় বিবাদীদের সাথে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষ যে কোন ধরনের অঘটন ঘটার সম্ভবনা বিদ্যামন। বিবাদীদেরকে আমি বার বার বাধা দেওয়ার চেষ্টা করিলে বিবাদীগণ আমাকে হত্যাসহ মারপিট করার হুমকি দেয় এবং দেশী তৈরী অস্ত্র-সস্ত্র ও বাঁেশর লাঠি-শোটা দিয়ে ভয় দেখায়। আমি সবুজবাগ থানা কর্তৃক সহযোগীতা না পাইয়া বিষয়টি আপনার সদয় অবগতি ও প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য অভিযোগ দায়ের করিলাম। আপনার সদয় অবগতির জন্য সবুজবাগ থানার সাধারণ ডাইরী নং- ৮৭৬, তারিখ- ২১-০৫-২০১৯ইং এবং বিজ্ঞ আদালতের পিটিশন মামলা নং- ৬২/২০১৯ অত্র সাথে সংযুক্ত করিলাম।

LEAVE A REPLY