ভাড়া না দেওয়ার নয়া ফন্দি: কমরেড সামাদের বিরুদ্ধে ভাড়াটিয়ার হয়রানিমূলক মামলা

0
41

বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি (মার্কসবাদী) এর সাধারণ সম্পাদক ও সদ্য সমাপ্ত ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে মাছ মার্কার প্রার্থী কমরেড ডা: এম. এ. সামাদের বিরুদ্ধে তাঁর মালিকানাধীন ফ্ল্যাটের ভাড়াটিয়া কর্তৃক পল্টন থানায় দায়েরকৃত মিথ্যা মামলাকে ভাড়া না দেওয়ার নয় ফন্দি বলে অবহিত করেছে বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি (মার্কসবাদী)।

আজ ৬ জুলাই ২০২০ইং সোমবার সংবাদ মাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে পল্টন থানায় দায়েরকৃত এই মিথ্যা ও হয়রানিমূলক মামলা প্রত্যাহারের দাবি জানিয়ে বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি (মার্কসবাদী) এর কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য কমরেড সামছুল হক সরকার বলেন, “এই মামলাটি সম্পূর্ণভাবে ভিত্তিহীন। যিনি এই মামলার বাদী, তিনি কমরেড সামাদের নিজস্ব মালিকানাধীন ৩৫/১, শান্তিনগরস্থ ফ্ল্যাটের ভাড়াটিয়া। ভাড়াটিয়া বিগত ৫ মাস যাবত ভাড়া পরিশোধ করেন না। কমরেড সামাদ ভাড়া পরিশোধ করতে বললে নানা টালবাহানা করেন। ৫ মাসের ভাড়া ১,৩০,০০০/- (এক লক্ষ ত্রিশ হাজার) টাকা যাতে দিতে না হয় এবং তিনি যাতে ভাড়া না দিয়ে বাসা ছাড়তে পারেন সে লক্ষ্যে ভাড়াটিয়া এই মিথ্যা চুরির মামলা করেন।”

তিনি বলেন, “কমরেড সামাদের সেই ফ্ল্যাটে সার্বক্ষনিক নিরাপত্তা ব্যবস্থা আছে এবং ভবন সিসি ক্যামেরা দ্বারা নিয়ন্ত্রিত। নিরাপত্তারক্ষীরা সাবক্ষনিক দায়িত্ব পালন করেন। ফ্লাটের দরজা জানালার কোন ক্ষয়ক্ষতিও হয়নি। ভবনের নিরাপত্তারক্ষীরা তদন্ত করে কোন চুরির আলামত পায়নি। উল্লেখ্য কমরেড সামাদ পরিবার নিয়ে উত্তর শাহজাহানপুরে থাকেন। মামলাটি তদন্ত করছেন পল্টন মডেল থানার সাব ইন্সপেক্টর রেজাউল করিম।”

তিনি অবিলম্বে এই হয়রানি মূলক মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার এবং প্রতারক ভাড়াটিয়ার কাছে পাওনা ভাড়া আদায় ও তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানান।

LEAVE A REPLY