৫৫ ফুট রাস্তার ৫২ ফুটই দখল করে ইউপি সদস্যের মাছের ঘের

0
32

তারা নিউজ ডেস্ক:

৫৫ ফুট রাস্তার ৫২ ফুটই দখল করে মাছের ঘের করেছেন স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের মেম্বার (সদস্য)। তার দখলে ছিলো এই রাস্তার মোট ৩৩৫ ফুট জায়গা। শেষ পর্যন্ত অভিযান চালিয়ে সেই জমি দখলমুক্ত করতে হলো দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক)!

দুদকের উপপরিচালক প্রণব কুমার ভট্টাচার্য বলেন, যশোর জেলার কেশবপুরে সরকারি খাসজমি দখল করে মাছের ঘের করার অভিযোগে অভিযান পরিচালনা করেছে দুদক। দুদক সমন্বিত জেলা কার্যালয় যশোরের উপপরিচালক মো. নাজমুচ্ছায়াদাতের নেতৃত্বে এ অভিযান পরিচালিত হয়।

দুদক টিম সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও সার্ভেয়ারের সমন্বয়ে অভিযান পরিচালনা করে দেখে, ৩৩৫ ফুট সরকারি রাস্তা দখল করে স্থানীয় এক ইউপি সদস্য মাছের ঘের করেছেন। সমন্বিত টিম পরিমাপ করে দেখে, ৫৫ ফুট চওড়া রাস্তার মাত্র ৩ ফুট ব্যবহারযোগ্য রয়েছে। অবশিষ্ট পুরোটাই দখল করা হয়েছে।

দুদক টিমের এ পর্যবেক্ষণকে আমলে নিয়ে দ্রুত উদ্ধার করা জমির সীমানা চিহ্নিত করা হবে মর্মে সহকারী কমিশনার (ভূমি) অবহিত করেন।

স্থানীয় জনসাধারণ জানায়, ওই এলাকায় এরকম আরও সরকারি খাসজমি দখল করা হয়েছে। এসব জমি উদ্ধারে তারা দুদককে অভিযান চালানোর জন্য অনুরোধও করেন।

এদিকে পাবনা জেলার সুজানগর থানার পদ্মা নদীর তীরে বালু উত্তোলনের অভিযোগে সমন্বিত জেলা কার্যালয় পাবনার একটি টিম এনফোর্সমেন্ট অভিযান পরিচালনা করে।

দুদক অভিযোগ কেন্দ্রে (হটলাইন- ১০৬) আসা অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে এ অভিযান পরিচালিত হয়। অভিযানে অভিযোগের প্রাথমিক সত্যতা পায় দুদক টিম। তারা এই অবৈধ বালু উত্তোলন বন্ধে স্থানীয় প্রশাসনকে অনুরোধ করে। এ প্রসঙ্গে কমিশনে বিস্তারিত প্রতিবেদন দাখিল করা হবে।

অপরদিকে লক্ষ্মীপুর পাসপোর্ট অফিসে অভিযান পরিচালনা করেছে সমন্বিত জেলা কার্যালয় নোয়াখালীর একটি টিম। টিম সেবাপ্রত্যাশীদের সঙ্গে কথা বলে। দুদক টিমের উপস্থিতি টের পেয়ে দালালরা পালিয়ে যায়। দুদক টিম সেবার মানোন্নয়নে সহকারী পরিচালককে পরামর্শ দেয়।

LEAVE A REPLY